গ্রাফিক্স ডিজাইন কি? গ্রাফিক্স ডিজাইন কিভাবে শিখব? গ্রাফিক্স ডিজাইন গাইডলাইন

গ্রাফিক্স ডিজাইন কিভাবে শিখব ?
গ্রাফিক্স ডিজাইন কিভাবে শিখব ?


বাংলাদেশের শীর্ষ পর্যায়ের ফ্রিল্যান্সিং কাজগুলোর তালিকার মধ্যে অন্যতম আলোচিত ফ্রিল্যান্সিং কাজ হল গ্রাফিক্স ডিজাইন। গ্রাফিক্স ডিজাইন যে শুধু ফ্রিল্যান্সিং এর মধ্যে সীমাবদ্ধ এমনটা কিন্তু নয়, চাকরির বাজারে একজন গ্রাফিক্স ডিজাইনারের চাহিদা ব্যাপক। 

যখন বিশ্বের বড় বড় ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসে গুলোর দিকে লক্ষ করলে গ্রাফিক্স এর জনপ্রিয়তা সম্পর্কে স্পষ্ট ধারনা পেয়ে যাবেন। তাহলে গ্রাফিক্স ডিজাইন যে একটি সম্ভাবনাময় ফ্রিল্যান্সিং জব এবং সেই সাথে একটি সফল ক্যারিয়ার সেই বিষয়ে কোনো সন্দেহ রইল না।  

তো সম্ভাবনাময় ফ্রিল্যান্সিং জব গ্রাফিক্স ডিজাইন কি? গ্রাফিক্স ডিজাইন কিভাবে করা যায়? কিভাবে গ্রাফিক্স ডিজাইন করে সফল ক্যারিয়ার দাঁড় করানো যায়?  এসব বিষয়ে শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত একটি বিস্তারিত গাইড লাইন আপনি পেতে যাচ্ছেন। তাই সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি ধৈর্য সহকারে পড়ার জন্য অনুরোধ রইল।

আরো পড়ুনমাসে লাখ টাকা আয় করার উপায়

গ্রাফিক্স ডিজাইন কি? গ্রাফিক্স ডিজাইন কিভাবে শিখবো? গ্রাফিক্স ডিজাইন কিভাবে করবেন? এসব প্রশ্নের উত্তর ছাড়াও সচরাচর জিজ্ঞাসা করা হয় এমন কিছু প্রশ্নের উত্তর FAQ  আকারে আর্টিকেল এর শেষে দেওয়া থাকবে। তাই আবারো সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি জুড়ে সাথে থাকার অনুরোধ করছি।



    গ্রাফিক্স ডিজাইন কি? 

    গ্রাফিক্স ডিজাইন হল, কল্পনা শক্তিকে কাজে লাগিয়ে কোনো কাল্পনিক ধারনা ( visual concept ) কে বিভিন্ন text বা ডিজাইনের মাধ্যমে একটি ছবি বা গ্রাফিক্স এ পরিনত করার একটি দক্ষতা বা শিল্প। 

    এক কথায় বলছি, গ্রাফিক্স ডিজাইন হল একটি শিল্প বা কলা বা আর্ট। আপনি যেটাই ধরবেন সেই হবে। গ্রাফিক্স ডিজাইন কি? এর সংজ্ঞা দিতে গেলে অনেকেই বুঝতে পারবে না তাই আমি প্রথমে সহজ ভাবে বোঝানোর চেষ্টা করেছি। 

    গ্রাফিক্স ডিজাইন এমন একটি শিল্প যেখানে, একজন ডিজাইনার নিজের চিন্তাকে একটি ছবির মাধ্যমে এমনভাবে ফুটিয়ে তুলে যেন মনে হয় ছবিটি তার চিন্তার প্রতিবিম্ব। 

    অর্থাৎ গ্রাফিক্স ডিজাইন এর মাধ্যমে কোনো মেসেজকে ছবি বা গ্রাফিক্স এর মাধ্যমে ফুটিয়ে তোলা হয়। এটাই হল গ্রাফিক্স ডিজাইন এর মূল অর্থ। 

    একজন গ্রাফিক্স ডিজাইনারের চিন্তাশক্তি ও সৃজশীলতা ( Creativity ) উচ্চ পর্যায়ের হওয়া আবশ্যক। একটি শব্দকে শোনা মাত্র তার ছবি কেমন হতে পারে সেটা একজন গ্রাফিক্স ডিজাইনাকে মনে মনেই অংকন করে নিতে হয়। 

    আরো পড়ুনঃ

    বন্ধু নিয়ে ফেসবুক স্ট্যাটাস ২০২২ | বন্ধু নিয়ে স্ট্যাটাস

    ইউটিউবার হওয়ার উপায় 

    ভিডিও দেখে প্রতিদিন ৫০০ ১০০০ টাকা আয় করুন guide bangla


    গ্রাফিক্স ডিজাইন কত প্রকার ও কি কি? 

    সরাসরিভাবে গ্রাফিক্স ডিজাইনকে দুটি বা তিনটি ভাগে বিভক্ত করা বেশ কঠিন একটি কাজ। কেননা এই ক্ষেত্রটি এত বিশাল যে সামান্য দুটি বা তিনটি টাইপে সম্পূর্ণ গ্রাফিক্স ডিজাইনকে অন্তুর্ভুক্ত করা মোটেই সহজ কাজ নয়। 

    গ্রাফিক্স ডিজাইন বলতে আমাদের দেশে কম্পিউটার গ্রাফিক্স কেই বোঝানো হয়ে থাকে। কেননা হেন্ড ড্রয়িং গ্রাফিক্স বর্তমানে খুব কমই ব্যবহৃত হয় তাই কম্পিউটার গ্রাফিক্স এর জনপ্রিয়তাই সবচেয়ে বেশি।   

    গ্রাফিক্স ডিজাইনের প্রকার নিয়ে লেখা এই অংশটি বেশ ভালোভাবে খেয়াল করবেন, কারন এই অংশে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্নের উত্তর পাবেন, সেই সাথে গ্রাফিক্স ডিজাইন এর কোন সেক্টরে কাজ করবেন সেটা সম্পর্কে আইডিয়া পেয়ে যাবেন যেটা বাছাই করতে অনেকেই ভুল করে।

    তো বিষেশজ্ঞদের মতে কম্পিউটার গ্রাফিক্সকে দুটি ভাগে ভাগ করা যেতে পারে। ( গ্রাফিক্স ডিজাইন কত প্রকার ) 

    ১. স্টিল ইমেজ গ্রাফিক্স 

    ২. মোশন গ্রাফিক্স 


    কিন্তু বিখ্যাত ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস  99design আমাদের এর থেকে কিছুটা ব্যাতিক্রম তথ্য দিচ্ছে।   99design সম্পূর্ণ গ্রাফিক্স সেক্টরটিকে ৮ টি ভাগে ভাগ করে সব ধরনের গ্রাফিক্স ডিজাইন জবসকে সেই ৮ প্রকারের মধ্যে অন্তর্ভুক্ত করেছে। 

    ১. ভিজুয়াল আইডেন্টিটি গ্রাফিক্স ডিজাইন

    ২. মার্কেটিং & এডভার্টাইজিং গ্রাফিক্স ডিজাইন

    ৩. ইউজার ইন্টারফেস গ্রাফিক্স ডিজাইন

    ৪. পাবলিকেশন গ্রাফিক্স ডিজাইন 

    ৫. পেকেজিং গ্রাফিক্স ডিজাইন 

    ৬. মোশন গ্রাফিক্স ডিজাইন 

    ৭. ইনভাইরনমেন্টাল ( Environmental )  গ্রাফিক্স ডিজাইন

    ৮. আর্ট এন্ড ইলাস্ট্রেশন গ্রাফিক্স ডিজাইন।  


    গ্রাফিক্স ডিজাইন এর এই ভয়ংকর রূপ দেখে হয়ত আপনাদের বিষয়গুলো বুঝতে অনেক সমস্যা হচ্ছে। কিন্তু চিন্তার কোনো কারন নেই আমি আপনাকে সব বুঝিয়ে বলছি।

    প্রাথমিক পর্যায়ে গ্রাফিক্স ডিজাইনের প্রকার নিয়ে মাথা ঘামাতে গেলে আপনার বিষয়গুলো বুঝতে বেশ সমস্যা হবে। কেননা আমি আগেই বলেছি গ্রাফিক্স ডিজাইন একটি বিশাল ক্ষেত্র একে সামান্য কয়েকটি ভাগে বিভক্ত করা মোটেও সহজ কাজ না।  

    তাই আপনি মনে সাহস এনে আমার সাথে সামনে এগুতে থাকুন এবং একটি কথার অপর বিশ্বাস রাখুন যে, গ্রাফিক্স ডিজাইন একটি আর্ট ও ডিজাইনের কাজ যা কিছু কম্পিটার সফটওয়্যার এর সাহায্যে করা হয় যেটা আপনিও করতে পারবেন। 


    আরো পড়ুনঃ

    ব্লগিং করে টাকা আয়, বাংলা ওয়েবসাইট থেকে টাকা আয় 

    গুগল এডসেন্স পাওয়ার উপায় | আ্যডসেন্স | এডসেন্স থেকে টাকা আয়

    bangla caption for facebook | fb caption bangla attitude 


    গ্রাফিক্স ডিজাইন এর ধরন

    তো এই আট প্রকারের গ্রাফিক্স ডিজাইন দেখে অনেকে ভাবছে, এগুলো কোন ধরনের গ্রাফিক্স যার নাম আমরা আজ পর্যন্ত শুনলাম না। তাদের জন্য বলছি...

    আমরা ইন্টারনেটে গ্রাফিক্স ডিজাইনের যে কাজ গুলোর নাম শুনেছে তার সবগুলো নিয়েই এই আট প্রকারের গ্রাফিক্স সাজানো হয়েছে। যেমন: 


    লোগো ডিজাইন, 

    ব্যানার ডিজাইন, 

    টি-শার্ট ডিজাইন,

    বিজনেস কার্ড ডিজাইন, 

    এডস ডিজাইন, 

    এনিমেশন ডিজাইন, 

    বুক কভার ডিজাইন,  

    ম্যাগাজিন ডিজাইন, 

    থিম ডিজাইন 

    অ্যাপ ডিজাইন 

    ইনফোগ্রাফিক্স 

    ওয়েব ডিজাইন 

    পোস্টার ডিজাইন 


    সব ডিজাইন আপনি সেই আট ক্যাটাগরিতে পেয়ে যাবেন। তাই চিন্তা করার কিছু নেই এই সব গ্রাফিক্স ডিজাইন জবসগুলোর মধ্যে যে কোনো একটিতে কাজ করলেই আপনি সফলতা পাবেন। অনেকে ভাবতে পারে যে সবগুলো কাজ শিখতে হবে নাকি?  না একদমই না আপনি যে কোনো একটিতে ভালো ভাবে কাজ করলেই সেটা আপনার জন্য যথেষ্ট হয়ে যাবে। 

    আমার ধারনা গ্রাফিক্স ডিজাইন কত প্রকার ও কি কি এই সম্পর্কে আপনার সকল misconception দূর হয়ে গেছে। তাই এবার  আমি সামনের ধাপে এগুতে চাই। 


    গ্রাফিক্স ডিজাইনের কাজ কি? 

    গ্রাফিক্স ডিজাইন এর ধরন সম্পর্কে জানার পরে এবার আসা যাক গ্রাফিক্স ডিজাইন এর কাজ জানার পর্যায়ে। গ্রাফিক্স ডিজাইন এর কাজ কি? গ্রাফিক্স ডিজাইনে আসলে কোন ধরনের কাজ করতে হয়? 

    গ্রাফিক্স ডিজাইন এর মূল কাজ হল কম্পিউটারের বিভিন্ন ডিজাইনিং সফটওয়্যার দ্বারা গ্রাফিক্স ডিজাইন এর যে কোনো একটি সেক্টর হতে পারে সেটা লোগো ডিজাইন, বিজনেস কার্ড ডিজাইন অথবা পোস্টার ডিজাইন কিংবা টি-শার্ট ডিজাইন, এসবের যেকোনো একটি সেক্টরে কাজ করা। 

    প্রতিটি সেক্টরে কাজ আলাদা আলাদা রকমের হয়ে সেই থাকে। তাই সবগুলো সেক্টরের কাজ এক কথায় বোঝানো মুশকিল। যেমন বুক কভার ডিজাইনিং এর কথায় ধরুন..

    একটি বইয়ের কভার ডিজাইনিং এর ক্ষেত্রে সর্বপ্রথমে ডিজাইনারকে বইটি সম্পর্কে জানতে হয়। বইটি কি সম্পর্কে লেখা হয়েছে, এর মূল অর্থ অনুধাবন করতে হয়। এরপরে সেই তথ্য  অনুযায়ী কভার কিরকম হবে তার একটা কাল্পনিক ছবি মনে মনে অঙ্কন করতে হয়। 

    এর পরে ফাইনাল ডিজাইন কমপ্লিট করার জন্যে আপনাকে সফটওয়ার এর সাহায্য নিয়ে ডিজাইনিং এর কাজটি সম্পূর্ণ করতে হয়। এভাবে বুক কভার ডিজাইনিং এর কাজ করতে হয়। 

    স্টিল ইমেজ ডিজাইনিং অথবা প্রিন্ট ডিজাইনিং এর প্রতিটি কাজেই আপনাকে এভাবেই ছবি ডিজাইন করতে হয় যেন, আপনর ছবিটি সম্পূর্ণ গল্প তুলে ধরতে সক্ষম হয়। 


    সম্পর্কিত আর্টিকেল ঃ

    ট্যাপ কি? ট্যাপ একাউন্ট খোলা, ট্যাপ ডায়াল কোড। 

    কন্টেন্ট রাইটিং, কন্টেন্ট রাইটিং কি? কিভাবে কন্টেন্ট রাইটিং করে টাকা আয় করবেন?

    ফ্রিল্যান্সিং কি? ফ্রিল্যান্সিং কিভাবে করা যায়? ফ্রিল্যান্সিং কেন করবনে?


    গ্রাফিক্স ডিজাইন এর কাজ সমূহ

    এই পর্যায়ে গ্রাফিক্স ডিজাইন এর প্রতিটি কাজ সম্পর্কে আপনাকে বেসিক ধারণা দেওয়ার চেষ্টা করব এবং বাংলাদেশের জনপ্রিয় কিছু গ্রাফিক্স ডিজাইন কাজের ব্যাপারে জানানোর চেষ্টা করব।


    বাংলাদেশে জনপ্রিয় গ্রাফিক্স ডিজাইন এর কাজ সমূহ 

    বাংলাদেশের জনপ্রিয় গ্রাফিক্স ডিজাইন এর কাজ সমূহ নিচের ধাপে ধাপে আলোচনা করা হলো। তো গ্রাফিক্স ডিজাইনের কাজ সম্পর্কে জেনে নিন। 


    Marketing & Advertising graphic design

    মার্কেটিং  ও এডভার্টাইজমেন্ট গ্রাফিক্স ডিজাইন এর অধীনে যে সকল গ্রাফিক্স ডিজাইন জবস আসে নিচে তার তালিকা আছে। 


     Ads Design 

     যে কোনো প্রতিষ্ঠান বা কোম্পানি মার্কেটিং এর জন্য বা কোনো অফার এর বিজ্ঞাপন দেওয়ার জন্য,   সেই বিজ্ঞাপনের যে ডিজাইন করা হবে সেটাই এডস ডিজাইন।   


     Banner Design

     এটিও একধরনে বিজ্ঞাপন। তবে এটা বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই প্রিন্ট বিজ্ঞাপনের আওতায় পরে যায়।   কোনো ব্যানার এর ডিজাইন কেমন হবে সেটা নির্ধারণ করা একজন ব্যানার ডিজাইনার এর কাজ।  


     Poster Design 

     কোম্পানির প্রচারনার জন্য প্রায়শই পোস্টার এর ব্যাবহার করা হয়ে থাকে। তাই পোস্টার ডিজাইনও   মারকেটিং গ্রাফিক্স ডিজাইন এর অন্তর্ভুক্ত।


    Brand identity

    মারকেটিং গ্রাফিক্স ডিজাইন শেষে এবার আইডেন্টিটি গ্রাফিক্স ডিজাইন এর সম্পর্কে কিছুটা ধারণা  নেয়া যাক


     Logo Design 

     লোগো কোন ব্র্যান্ড বা কোম্পানির পরিচয় বহন। করে তাই লোগো ডিজাইন ব্র্যান্ড আইডেন্টিটি   গ্রাফিক্স ডিজাইন এর অন্তর্ভুক্ত।

     লোগো ডিজাইন খুব জনপ্রিয় একটি গ্রফিক্স ডিজাইন জব এবং আপনারা সবাই এর সম্পর্কে   ভালোভাবে অবগত আছেন।


     Packaging Design 

     প্যাকেজিং ডিজাইন বেশ আলোচিত একটি গ্রাফিক্স ডিজাইন জব। কোনো প্রোডাক্ট এর প্যাকেজ   কিরকম হবে সেটা প্যাকেজিং ডিজাইন এর মাধ্যমে নির্ধারণ করা হয়।


     Business Card Design

     বিজনেস কার্ড হলো ক্রেডিট কার্ড সাইজের একটি কার্ড, যা কোন কোম্পানি বা প্রতিষ্ঠানের   কর্মকর্তাদের পরিচয় বহন করে। বিজনেস কার্ড ডিজাইন এর কাজটি ব্র্যান্ড আইডেন্টিটি ডিজাইন   গ্রাফিক্স ডিজাইন এর অন্তর্ভুক্ত


      Website Graphic

     কোন ওয়েবসাইট এর লে-আউট ( layout ) ডিজাইন কিরকম হবে, লোগো কেমন হবে, k ছবিগুলো   কিভাবে প্লেসমেন্ট করা হবে ইত্যাদি বিষযগুলো ওয়েবসাইট গ্রাফিক্স ডিজাইনার নির্ধারণ করে। 


     T-shirt Design 

     গ্রাফিক্স ডিজাইনের এই ক্ষেত্রটি এতটাই জনপ্রিয় যে, আমার মনে হয় আপনারা সকলেই এর সম্পর্কে   যথেষ্ঠ অবগত আছেন। 


     Boucher Design

     কোনো কোম্পানি বা ব্রান্ডের ভাউচার ডিজাইন করার কাজই ভাউচার গ্রাফিক্স ডিজাইন। 


     Payment Recipe Design 

    পেমেন্ট রিসিভ স্লিপ কেমন হবে তার ডিজাইন করাই এই ভিজাইনিং এর অন্তর্গত।  


    Publication Graphic Design 

    পাবলিকেশন বলতে তো জানেন? কোনো প্রকাশনাকে বোঝানো হচ্ছে। পাবলিকেশনে গ্রাফিক্স  ডিজাইনারের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা আছে এনং সেটা পড়লেই বুঝতে পারবেন। 


     Book Design 

     কোনো বইয়ের ডিজাইন নির্ধারন ও সেই বইয়ের কভার ও ভিতরে থাকা ছবিগুলো ডিজাইন করা বুক   ডিজাইনের অধীনে আসে। 


     Magazines and Newspaper Design 

     মেগাজিন ও নিউজপেপারের ভিতরে টেক্সট এর ফন্ট, ইমেজের পজিশন, মেগাজিনেরর কভার,   সেকশন ডিজাইন সব কিছু মিলেই এই  গ্রাফিক্স ডিজাইন অংশ। 


     Comic Book Design

     কমিক বুক এর ডিজাইন ও ছবিগুলো একটু ইউনিক হয়ে থাকে। যেটা গ্রাফিক্স ডিজাইনের সাহায্যেই   করা হয়ে থাকে


     Book Cover Design

     বইয়ের কভার এর ডিজাইন করা গ্রাফিক্স ডিজাইন এর অন্তর্গত। এটি বেশ পরিচিত একটি গ্রাফিক্স   ডিজাইন জব।


     Blog Design

     কোনো ব্লগের ডিজাইন পোস্টের ছবির ডিজাইন সব কিছুই ব্লগ গ্রাগিক্স ডিজাইনের এর আওতায়   আসে। 


    Motion Graphic Design

    সহজ ভাষায়, মোশন গ্রাফিক্স বলতে মূলত ভিডিও গ্রাফিক্স কেই বোঝানো হয়। মোশন গ্রাফিক্স এর কয়েকটি কাজ নিচে তুলে ধরা হল। 

      Video Game Design

      Animation Design 

      Animated logo 

      Video ads 


    তো এই ছিল মূলত গ্রাফিক্স ডিজাইন এর  কাজসমূহ। এর মধ্যে প্রতিটি কাজ একটি অপরটির সাথে জড়িত। গ্রাফিক্স ডিজাইনে সফল ক্যারিয়ার গঠনের জন্য যে কোনো একটি কাজকে বেছে নিলেই হবে। 

    গ্রাফিক্স ডিজাইন এর জন্য কোন কাজকে বেছে নিবেন সেই সিদ্ধান্ত এখন নেওয়ার সময় আসেনি। প্রথমত আপনাকে প্রতিটি কাজ সম্পর্কে কিছুটা হলেও জানতে হবে এবং কাজগুলো করতে কি ধরনের সফটওয়্যার বেশি উপযোগী? কোনটা শিখতে হবে? এ বিষয়গুলো ভালভাবে জানতে হবে। তবেই আপনি কাজ বাছাইয়ের সিদ্ধান্ত নিতে পারবেন। তাই এখনই কাজ বাছাই এর ঝামেলায় জড়াবেন না, এটা করার সময় পরে আসবে।


    গ্রাফিক্স ডিজাইন কিভাবে করে? 

    গ্রাফিক্স ডিজাইন করার জন্য কম্পিউটার সফটওয়্যার ব্যবহার করা হয়। আবার অনেকেই আইপ্যাড এর মত ডিভাইসে ড্রইং এর মাধ্যমে গ্রাফিক্স ডিজাইন এর কিছু কাজ করে থাকে। 

    তবে একটি বিষয় নিশ্চিত বর্তমানে কম্পিউটার গ্রাফিক্স করার জন্য আপনাকে বিভিন্ন সফটওয়্যার এ পারদর্শী হতে হবে। নিচে গ্রাফিক্স ডিজাইন সফটওয়্যার সম্পর্কে আলোচনা করা হয়েছে। 


    গ্রাফিক্স ডিজাইন এর জন্য কোন কোন সফটওয়্যার ব্যবহার করা হয়? (গ্রাফিক্স ডিজাইন এর সফটওয়্যার)

    গ্রাফিক্স ডিজাইন-এ সফটওয়্যার এর ব্যবহার কাজের ধরন অনুসারে করা হয় একেক কাজের জন্য একেক ধরনের সফটওয়্যার ব্যবহার করা হয়ে থাকে। তবে কিছু সফটওয়্যার বেশি পরিমাণে ব্যবহার করা হয়ে থাকে সেগুলোর ব্যাপারে নিজের কথা বলেছি।


    গ্রাফিক্স ডিজাইনের সফটওয়্যার গুলো 

    গ্রাফিক্স ডিজাইন ফটো এডিটিং জগতের সেরা 7 টি সফটওয়্যার এর সাথে আপনাদের পরিচয় হতে যাচ্ছে।

      1. Adobe Photoshop

      2. Adobe InDesign

      3. Corel DRAW

      4. Adobe Illustrator

      5. Auto CAD 2D & 3D

      6. PHOTOSCAPE

      7. Vectr

    এই কয়েকটি সফটওয়্যার এর মধ্যে যেকোনো একটি সফটওয়্যার প্রফেশনাল উপায় শিখতে পারলে সেই সফটওয়ারটি আপনাকে প্রফেশনাল ক্যারিয়ার পর্যন্ত নিয়ে যাবে। গ্রাফিক্স ডিজাইন সেক্টরে এস টি সফটওয়্যার ব্যাপকভাবে ব্যবহৃত হয় তাই এই সফটওয়্যার গুলোর যে কোনো একটি শেখা অতি জরুরী।


    গ্রাফিক্স ডিজাইন কিভাবে শিখব? 

    গ্রাফিক্স ডিজাইন সম্পর্কে বিস্তারিত জানান পরে এবার আপনার পরবর্তী কাজ হবে গ্রাফিক্স ডিজাইন শেখা। গ্রাফিক্স ডিজাইন কিভাবে শিখব? এই প্রশ্নের উত্তরে অনেক ব্লগার বা ইউটিউবে আপনাকে অনেক পদ্ধতি বলে দেবে। যে সব উপায়ে গ্রাফিক্স ডিজাইন শেখার অনেকের জন্য কষ্টকর হয়ে দাঁড়ায়।

    কিন্তু এই আর্টিকেলের আমি গ্রাফিক্স ডিজাইন শেখা কিছু কার্যকরী ও সহজ  উপায় আপনাদের সামনে উপস্থাপন করবো যেগুলো প্রকৃত অর্থে ডিজাইন শেখার জন্য আপনাকে সাহায্য করবে। আমার ধারনা এই আর্টিকেল পড়ে আপনার মনের, কিভাবে গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখব? এই প্রশ্নটি হারিয়ে যাবে। 


    গ্রাফিক্স ডিজাইন শেখার উপায়? 

    বাংলাদেশের গ্রাফিক্স ডিজাইন শেখার দুটি পদ্ধতি রয়েছে প্রথমটি হল, ফ্রিতে গ্রাফিক্স ডিজাইন শেখার দ্বিতীয়টি হলো, অর্থের বিনিময় গ্রাফিক্স ডিজাইন শেখা।


    ফ্রিতে গ্রাফিক্স ডিজাইন শেখার উপায়

    ফ্রিতে গ্রাফিক্স ডিজাইন শেখার অনেকগুলো উপায় থাকলেও কার্যকরী উপায় মাত্র কয়েকটি। এই পর্যায়ে আমি ফ্রিতে গ্রাফিক্স ডিজাইন শেখার কার্যকরী উপায় গুলো আপনাদের সাথে শেয়ার করছি। 

     • ইউটিউব থেকে গ্রাফিক্স ডিজাইন শেখা

     • Udemy ফ্রি কোর্সের মাধ্যমে গ্রাফিক্স ডিজাইন শেখা

     • Coursear ফ্রি কোর্সের মাধ্যমে গ্রাফিক্স ডিজাইন শেখা। 

     • বই পড়ে গ্রাফিক্স ডিজাইন শেখা


    ইউটিউব থেকে গ্রাফিক্স ডিজাইন কিভাবে শিখব? 

    গ্রাফিক্স ডিজাইন সহ যেকোন ফ্রিল্যান্সিং জব ফ্রিতে শেখার জন্য ইউটিউব থেকে সেরা কোন মাধ্যম নেই। ইউটিউবে আপনি সহজেই গ্রাফিক্স ডিজাইন এর বিভিন্ন ফ্রী কোর্স ও টিউটোরিয়াল ভিডিও এর প্লেলিস্ট পেয়ে যাবেন। অনেকেই মনে করবে, ইউটিউব থেকে কিভাবে গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখব? তার উত্তর নিচের আর্টিকেল পড়লেই পেয়ে যাবেন। 

    ইউটিউবে আপনি যেসব গ্রাফিক্স ডিজাইন কোর্স সেগুলোতে বিভিন্ন ধরনের কাজ শেখানো হয়ে থাকে যেটা একজন বিগেনার গ্রাফিক্স ডিজাইনার এর জন্য খুবই উপকারী।

    এই অংশে আমি গ্রাফিক্স ডিজাইন শেখার কিছু ইউটিউব চ্যানেল (গ্রাফিক্স ডিজাইন শেখার চ্যানেল) ও ভিডিও প্লে-লিস্ট সাজেস্ট করছি, যেন আপনি সহজেই গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখতে পারবেন।


    Udemy ফ্রি কোর্সের সাহায্যে কিভাবে গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখব ? 

    যেকোনো বিষয়ে ফ্রী অথবা পেইড কোর্স করার জন্য Udemy এর থেকে সেরা দ্বিতীয় কোনো  প্ল্যাটফর্ম আছে বলে আমার জানা নেই। তাই ফ্রি গ্রাফিক্স ডিজাইন কোর্স করার জন্য আপনিও ইউডেমি কে বেছে নিতে পারেন।

    নিচে আমি ইউডেমিতে থাকা ফ্রি গ্রাফিক্স ডিজাইন কোর্স এর একটি তালিকা শেয়ার করলাম যা আপনার জন্য কার্যকারী প্রমাণিত হবে। 

    Enroll Free Graphic Design Course


    Coursera ফ্রি কোর্সের মাধ্যমে কিভাবে গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখব? 

    ফ্রি গ্রাফিক্স ডিজাইন কোর্স এর সন্ধান করলে Coursera প্ল্যাটফর্মের ফ্রি গ্রাফিক্স ডিজাইন কোর্সগুলো একবার হলেও Enroll করা উচিত। নিচের লিংকে ক্লিক করে Coursera ওয়েবসাইট এর ফ্রি গ্রাফিক্স ডিজাইন কোর্স গুলো একবার দেখে নিতে পারেন।

    Book A Free Coursera Course


    গ্রাফিক্স ডিজাইন শেখার বই 

    বই পড়ে যদিও সম্পূর্ণরূপে একজন গ্রাফিক্স ডিজাইনার হওয়া বেশ কঠিন। কিন্তু গ্রাফিক্স ডিজাইনার হওয়ার জন্য গ্রাফিক্স ডিজাইনিং এর বই পড়া সহযোগী প্রমাণিত হয়েছে । 

    অভিজ্ঞ গ্রাফিক্স ডিজাইনাররা অনেকেই গ্রাফিক্স ডিজাইনিং বই পড়ার পরামর্শ দিয়ে থাকেন। তাই আমিও নিচে কিছু গ্রাফিক্স ডিজাইনিং সম্পর্কিত জনপ্রিয় বই এর তালিকা শেয়ার করলাম, যাতে করে আপনিও নিজেকে একজন পরিপূর্ণ সফল গ্রাফিক্স ডিজাইনার হিসেবে প্রতিষ্ঠা করতে পারেন।


    অর্থের বিনিময় গ্রাফিক্স ডিজাইন শেখা

    এতক্ষণ পর্যন্ত আপনাকে ফ্রি গ্রাফিক্স ডিজাইন শেখার উপায় গুলো বাদ দিয়ে দিলাম। তো এই পর্যায়ে আমি গ্রাফিক্স ডিজাইন শেখার পেইড মেথড গুলো আপনাকে জানব। 

    টাকা খরচ করে গ্রাফিক্স ডিজাইন শেখা বাধ্যতামূলক নয় বরং এটা অনেকেরই সাধ্যের বাইরে যদিও গ্রাফিক্স ডিজাইন শেখার কোর্স গুলো অনেক সহোযোগী হয়ে থাকে তবুও আমি ফ্রিতে গ্রাফিক্স ডিজাইন শেখার জন্য চেষ্টা করতে বলবো। 

    তবে যারা টাকা খরচ করে প্রফেশনাল ভাবে গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখতে আগ্রহী আছেন, তারা গ্রাফিক্স ডিজাইন এর কোর্স করে নিজের সফল ক্যারিয়ার দাঁড় করাতে পারেন।


    গ্রাফিক্স ডিজাইন শেখার কোর্স

    এ আলোচনায় আমি গ্রাফিক্স ডিজাইন শেখার কোর্স এ ব্যাপারে কোন তথ্য দিতে পারব না কেননা আমি ব্যক্তিগতভাবে কোন কোর্স কে প্রচার করতে চাচ্ছি না। 

    আপনি বাংলাদেশের যে এলাকায় থাকুন না কেন, আপনার জেলা পর্যায়ে বা বিভাগীয় পর্যায়ে গ্রাফিক্স ডিজাইন শেখার বেশকিছু ইনস্টিটিউট পেয়ে যাবেন। তাই এই পোস্টে আমি কোন ধরনের গ্রাফিক্স ডিজাইন এর কোর্সের কথা বলছি না। 

    তবে গ্রাফিক্স ডিজাইন কোর্স করার কিছু সুফল আমি আপনাদের সাথে শেয়ার করছি ।


    গ্রাফিক্স ডিজাইন কোর্স করা কেন লাভজনক?

    প্রথমত গ্রাফিক্স ডিজাইন এর কোর্স করলে আপনি, ইনস্টিটিউট থেকে একটি সার্টিফিকেট পাবেন যেটা আপনাকে একজন সার্টিফাইড গ্রাফিক্স ডিজাইনার হিসেবে পরিচিত করবে।

    দ্বিতীয়ত, আপনি যদি ভালোভাবে গ্রাফিক্স ডিজাইন কোর্সটি সম্পন্ন করতে পারেন তাহলে ক্যারিয়ারের শুরুতেই অনেক ইনস্টিটিউট আপনাকে জব অফার করবে । 

    এবং ফাইনালি গ্রাফিক্স ডিজাইন কোর্স গুলো আপনাকে কাজ শেখার পর্যায়ে ভালোভাবে গাইড করবে যেটা খুবই প্রয়োজনীয়।

    এতক্ষণ কিভাবে গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখবেন সেটার ব্যাপারে বিস্তারিত তথ্য পেলেন এবং আশাকরি আপনি গ্রাফিক্স ডিজাইন শেখার উপায়গুলোর যেকোনো একটি কে কাজে লাগিয়ে গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখতে পারবেন।

    এবার আসা যাক গ্রাফিক্স ডিজাইন এর কাজ কিভাবে করবেন এবং কোথায় করবেন।


    গ্রাফিক্স ডিজাইন এর কাজ কিভাবে করব কোথায় করব? 

    প্রথমত গ্রাফিক্স ডিজাইন এর কাজ আপনি বিভিন্ন জব এর মাধ্যমে পেয়ে যাবেন। বাংলাদেশের বিভিন্ন ডিজাইনিং কোম্পানি ও পাবলিশিং কোম্পানি গ্রাফিক্স ডিজাইনার এর জন্য জব অফার করে থাকে। তবে এইসব জবে প্রফেশনাল ও ডিগ্রিধারী গ্রাফিক্স ডিজাইনাররা বেশি প্রাধান্য পেয়ে থাকে। 

    এছাড়া আপনি ফ্রিল্যান্সিং এর মাধ্যমে আপনার গ্রাফিক্স ডিজাইন নিউ দক্ষতা কি দারুন ভাবে কাজে লাগাতে পারেন যা আপনাকে জব সালারি এর থেকে দ্বিগুন পরিমান টাকা এনে দিতে পারে।

    বাংলাদেশে ফ্রিল্যান্সিং একটি সম্ভাবনাময় পেশা এবং গ্রাফিক্স ডিজাইন একটি সম্ভাবনাময় ফ্রিল্যান্সিং জব।  ফ্রিল্যান্সিং কি?   ফ্রিল্যান্সিং কিভাবে করবেন? এবং কেন করবেন?  বিস্তারিত তথ্য আপনি এই পোস্টটি পেয়ে যাবেন।


    গ্রাফিক্স ডিজাইনিং এর ভবিষ্যৎ?

    আগেই বলেছি বাংলাদেশে গ্রাফিক্স ডিজাইন একটি সম্ভাবনাময় ফ্রিল্যান্সিং জব। আপনি যদি একজন সফল গ্রাফিক্স ডিজাইনার হতে পারেন তাহলে বাংলাদেশ ছাড়াও বিশ্বের বিভিন্ন দেশে আপনি গ্রাফিক্স ডিজাইনার হিসেবে জব Opertunaty পেয়ে যাবেন। 

    জব ছাড়াও ফ্রিল্যান্সিং শিখতে গ্রাফিক্স ডিজাইনিং এর যথেষ্ট Potentiality রয়েছে। আপনি চাইলে নিজেকে একজন গ্রাফিক্স ডিজাইন ফ্রিল্যান্সার হিসেবে গড়ে তুলতে পারে। 


    গ্রাফিক্স ডিইজাইন সম্পর্কিত FAQ 

    এই অংশে গ্রাফিক্স ডিজাইন সম্পর্কে এমন কিছু প্রশ্নের উত্তর নিয়ে আলোচনা করা হবে যা বরাবরই জিজ্ঞাসা করা হয়ে থাকে। 


    উপসংহার : 

    এই আর্টিকেলে গ্রাফিক্স ডিজাইনে  সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য ও গাইডলাইন দেওয়ার চেষ্টা করা হয়েছে। কিভাবে গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখব? গ্রাফিক্স ডিজাইন কিভাবে করে?  ইত্যাদি বিষয়ে সম্পর্কে গবেষনামূলক তথ্য দেওয়ার চেষ্টা করেছি। 

    যারা গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখতে চান তাদের জন্য এই আর্টিকেলটি একটি সম্পুর্ন গাইডলাইন হবে। আর্টিকেলটি ভালো লাগলে বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করে সবাইকে গ্রাফিক্স ডিজাইন শেখার উপায় সম্পর্কে জানতে সহায়তা করুন।  

    Next Post Previous Post